কার্তিক মাসে খাবারের ক্ষেত্রে যেসব নিয়ম অনুসরণ করতে হবে

Spread the love
ছবি সংগ্রীহিত

অনলাইন ডেস্ক: বাংলা পঞ্জিকা অনুসারে এখন কার্তিক মাস চলছে। হিন্দু ধর্ম অনুসারে কার্তিককে পবিত্রতম মাস হিসেবে বিবেচনা করা হয়। ২৩ অক্টোবর থেকে শুরু হওয়া এই মাস শেষ হবে ২১ নভেম্বর। কার্তিক মাসে কিছু নিয়ম মেনে খাবার খেলে আপনি থাকবেন সুস্থ ও সুন্দর।

আমিষ জাতীয় খাবার পরিহার করুন

হিন্দু ধর্মানুসারে, এই মাসে আমিষ জাতীয় খাবার না খাওয়াই ভালো। চিকিৎসা বিজ্ঞানে বলা হয়েছে, কার্তিক মাসে প্রাণীদের প্রজনন প্রক্রিয়া শুরু হয় এবং তাদের শরীরে বিভিন্ন রোগের সৃষ্টি হয়। যে কারণে মানব শরীরে আমিষ জাতীয় খাবার খেলে হজমে ব্যাঘাত ঘটে।

দুধ খাবেন

প্রতিদিন এক গ্লাস দুধ খেলে শরীরের শক্তি বৃদ্ধি পায় এবং রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বৃদ্ধি পায়।

গুড় খাওয়া ভালো

গুড় শরীরে জাদুর মতো কাজ করে। এটি মানব শরীরে ব্লাড প্রেশার নিয়ন্ত্রণ করে। এই কার্তিক মাসে নিয়মিত গুড় খেলে ঠাণ্ডা ও কাশি থেকেও দূরে থাকা যায়।

ঠাণ্ডা পানি এড়িয়ে চলুন

এই আবহাওয়ায় ঠাণ্ডা পানি এড়িয়ে চলুন। ঠাণ্ডা পানি খেলে কাশি হতে পারে। শরীর সুস্থ রাখতে খাদ্য তালিকা থেকে পুরোপুরি ঠাণ্ডা পানি বাদ দিতে হবে।

বিট লবণ ব্যবহার করুন

আবহাওয়া পরিবর্তনের কারণে শরীরে অ্যাসিডিটি বাড়ে। বিট লবণের সঙ্গে খনিজ লবন খেলে অ্যাসিডিটির সমস্যা দূর হবে।

সাদা ময়দার হালুয়া খান

সাদা ময়দা, ঘি, চিনি, এলাচ ও কিসমিস দিয়ে হালুয়া তৈরি করে খেতে পারেন। এটি নিয়মিত খেলে শরীরের উষ্ণতা বাড়ে এবং এটি শরীরকে সুস্থ রাখতে সহায়তা করে।

তুলসী পাতা ব্যবহার করুন

তুলসী পাতা দিয়ে নিয়মিত চা খেতে পারেন। অথবা এই পাতা কুচি কুচি করে নিয়মিত খেলে শরীরের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ে। ঠাণ্ডা-কাশি থেকে মুক্তি তুলসী পাতা খেতে পারেন।

করল্লা পরিহার করুন

বিশেষজ্ঞরা এই সময়ে করল্লা খেতে নিষেধ করেন। কার্তিক মাসে করল্লা পেকে যায়। পাকা করল্লায় অনেক সময় ব্যকটেরিয়ার আক্রমন করে। ফলে ফুড পয়জনিং সহ অন্যান্য রোগে আক্রান্ত হওয়ার আশঙ্কা থাকে। সূত্র: টাইমস অব ইন্ডিয়া

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *