নিউইয়র্ক থেকেই নির্মাণে ফিরলেন হিমেল, সঙ্গে তাহসান-মোনালিসা

Spread the love

অনলাইন ডেস্ক: ‘সুলতানা বিবিয়ানা’ ছবি নির্মাণ করে বড় পর্দাতেও মুন্সিয়ানার পরিচয় দিয়েছেন নাট্যনির্মাতা হিমেল আশরাফ। এই নির্মাতা দীর্ঘদিন ধরে অবস্থান করছেন আমেরিকাতে। ফলে ক্যামেরার সঙ্গে দূরত্ব তার। নির্মাণ করছিলেন না নাটক ও সিনেমা।  সে বিরতি ভাঙল এবার। আমেরিকাতেই ঈদুল আজহার জন্য নির্মাণ করলেন নাটক। তাতে অভিনয় করলেন জনপ্রিয় অভিনেতা ও গায়ক তাহসান খান। বিপরীতে আছেন মোনালিসা।

নাটকটির নাম ‘দেখা হবে’। মুনতাহা বৃত্তার রচনায় নাকটি ঈদে আর টিভিতে প্রচার হবে বলে জানালেন নির্মাতা। গত ১৭ জুলাই থেকে  নিউয়র্কের ম্যানহাটান, লং আইল্যান্ড, কোনী আইল্যান্ড, ডাম্বো, কুইনস ভিলেজ এবং টাইমস স্কয়ারে ধারণ করা হয়েছে নাটকটির শুটিং। টানা তিনদিন শুটিং হয় নাটকটির।

দীর্ঘদিন পর শুটিংয়ে অংশ নেয়া প্রসঙ্গে হিমেল আশরাফ বলেন, ‘আসলে অনেক দিন বিরতি দিয়ে কোন কাজ শুরু করলে যা হয়। সব কিছুই নতুন নতুন লাগে। আমার বেলায় তেমনটি ঘটছে। সব কিছুই নতুন মনে হয়েছে। তবে কাজ শুরুর পর জড়তা কেটে গেছে।’

করোনার বিপর্যদস্ত ছিলো নিয়ইয়ক শহর। তাই এখনও সবার মধ্যে কিছুটা আতঙ্ক বিরাজ করছে। এছাড়াও ওখানে শুটিংবান্ধব বিষয়টি নেই বলেই মন্তব্য তার। তবে কোন রকম ঝামেলা ছাড়াই শুটিং শেষ করেছেন বলে জানালেন হিমেল আশরাফ।

পরিচালক বলেন, ‘সবাই জানেন করোনায় কতটা প্রভাব ছিলো এখানে। এখনও সে ভয় এোনকার মানুষ তেমন কাটিয়ে উঠতে পারেনি। তবে শুটিংয়ে সময়ে এখানকার সবারই খুব হেল্প পেয়েছি। সবার সহযোগিতায় কাজটি করতে সমর্থ হয়েছি।’

যুবরাজ ফিল্মস ইউএসএ প্রোডাকশনের ব্যানারে নির্মিত পিউর রোমান্টি ধাঁচের গল্প নিয়ে নাটকটি নির্মিত।  তাহসান ও মোনালিসা ছাড়াও এতে অভিনয় করেছেন  বাপ্পী, এ্যারন পালমার, নোরা ও প্রীতম।

এতে অভিনয় প্রসঙ্গে তাহসান বলেন, ‘গল্পটি সুন্দর। অভিনয় করে তাই ভালোই লেগেছে। তবে শুটিংয়ের সময় কিছুটা জড়তা কাজ করেছে আমার মধ্যেও। কারণ অনেক দিন পর ক্যামেরার সামনে আসা। তার আবার নিয়েইয়র্ক শহরে। যেখানে করোনার আঘাত বেশি মাত্রায় ছিলো।’

নাটকটি নিয়ে প্রত্যাশার গল্প শোনালেন মুনালিসাও। তার বিশ্বাস ঈদে দর্শকরা পছন্দ করবেন নাটকটি।