ক্যাম্পাসেই হলো শিক্ষার্থীর গায়ে হলুদ

Spread the love

অনলাইন ডেস্ক: সন্ধ্যা নেমেছে ক্যাম্পাসে। এমন সময়ে সাধারণত ক্যাম্পাসে আড্ডায় মেতে থাকেন শিক্ষার্থীরা। কিন্তু বুধবার সন্ধ্যায় দেখা গেল ভিন্ন দৃশ্য। বিশ্ববিদ্যালয়ের মুক্তমঞ্চে একদল শিক্ষার্থী মেতেছে গায়ে হলুদের আয়োজনে। বাঁশের ডালা, কুলা, চালুন ও মাটির সরা, ঘড়া, মটকা দিয়ে বিয়ের বাড়ির আমেজ তৈরি করেছে শিক্ষার্থীরা। 

বিশ্ববিদ্যালয়ের ক্যাম্পাসে এমন আয়োজন দেখে আড্ডা ছেড়ে শিক্ষার্থীরা আসতে শুরু করলেন মুক্তমঞ্চের দিকে। জমে উঠলো ক্যাম্পাসে গায়ে হলুদের আয়োজন। মঞ্চে হলদে শাড়ি আর পাঞ্জাবি পরা একদল তরুণ-তরুণীর দিকে দৃষ্টি আটকে রইলো সবার। 

এভাবেই উৎসব মুখর পরিবেশে কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়ের লোকপ্রশাসন বিভাগের শিক্ষার্থী বিলকিস জাহান রিমার গায়ে হলুদ অনুষ্ঠিত হয়েছে।

বুধবার সন্ধ্যায় বিশ্ববিদ্যালয়ের মুক্তমঞ্চে কনের সহপাঠীদের আয়োজনে রিমার গায়ে হলুদের অনুষ্ঠান শুরু হয়। বন্ধুবান্ধব ছাড়াও বিভাগের সিনিয়র-জুনিয়রদের পাশাপাশি এ সময় অন্যান্য বিভাগের শিক্ষার্থীরাও উপস্থিত ছিলেন।

গায়ে হলুদের এ আয়োজন কনের পরিবারের লোকজন কেউ করেননি। পুরো আয়োজনটি করেছে বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরাই। এই ঘটনা সাড়া ফেলেছে পুরো ক্যাম্পাসে। সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে তাদের এই উদ্যোগকে শুভেচ্ছা জানিয়ে প্রশংসা করছেন অনেকে। কেউবা ইচ্ছা প্রকাশ করে বলছেন, তিনিও পরিবারের সাড়া পেলে গায়ে হলুদের আয়োজন করবেন নিজের ক্যাম্পাসে।

এ আয়োজনের অন্যতম উদ্যোক্তা রিমার বান্ধবী শাম্মী আক্তার বীথী বলেন, ‘বিয়েতে সবার পক্ষে ওর বাড়িতে যাওয়া সম্ভব না, তাই বান্ধবীর বিয়ের মজা করার জন্য ক্যাম্পাসে এই হলুদের ব্যতিক্রমী আয়োজন। বান্ধবীর ভবিষ্যত দাম্পত্য জীবনের জন্য সবার শুভকামনা জানানোই এই আয়োজনের মূল উদ্দেশ্য ছিল।’ 

রিমার আরেক বান্ধবী তিশা চাকমা বলেন, ‘কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়ে এই প্রথম কারও গায়ে হলুদের আয়োজন হয়েছে। আমরা আনন্দিত। বান্ধবীর জন্য অনেক অনেক শুভকামনা।’

হলুদকন্যা রিমা উচ্ছ্বাস প্রকাশ করে বলেন, নিজেকে খুবই সৌভাগ্যবান মনে হচ্ছে। ক্যাম্পাসে আমার গায়ে হলুদের অনুষ্ঠান হবে কখনও ভাবিনি। সহপাঠীদের ভালবাসা পেয়ে আমি অনেক বেশি আনন্দিত। আমাদের জন্য সবাই দোয়া করবেন।

বাংলাদেশ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী আকরাম হোসেন খানের সঙ্গে পারিবারিকভাবে বিয়ে ঠিক হয়েছে রিমার। আগামী ২ জানুয়ারি তাদের বিয়ে হওয়ার কথা রয়েছে। রিমা ও আকরামের বাড়ি ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলায়।