বুন্দেসলিগায় চোটের হিড়িক

Spread the love

বুন্দেসলিগা মাঠে গড়ানোর পর সবার নজর ছিল করোনাভাইরাসের দিকে। কিন্তু দ্বিতীয় রাউন্ডের আগে মূল আলোচনার বিষয় হয়ে দাঁড়িয়েছে খেলোয়াড়দের ইনজুরি। টানা অষ্টম শিরোপার মিশনে নামা বায়ার্ন মিউনিখ আজ মুখোমুখি হবে ১৩তম স্থানে থাকা ফ্রাঙ্কফুর্টের।

আর দ্বিতীয় স্থানে থাকা বরুশিয়া ডর্টমুন্ডের প্রতিপক্ষ উলফসবার্গ। শীর্ষে থাকা বায়ার্নের চেয়ে চার পয়েন্ট পেছনে আছে ডর্টমুন্ড। গত সপ্তায় দর্শকশূন্য গ্যালারিতে মাঠে গড়ায় বুন্দেসলিগা।

প্রথম রাউন্ডেই আধা ডজন খেলোয়াড় চোটে পড়েন। ধারণা করা হচ্ছে, প্রায় দুই মাস বন্ধ থাকার পর কোনো প্রস্তুতি ম্যাচ খেলা ছাড়াই মাঠে নেমে পড়ায় ফুটবলাররা এভাবে ইনজুরিতে পড়েছেন। এর মধ্যে বরুশিয়া ডর্টমুন্ডের ১৭ বছর বয়সী আমেরিকান মিডফিল্ডার জিওভান্নি রেইনা শালকের বিপক্ষে ম্যাচের আগে ওয়ার্মআপের সময় ইনজুরিতে পড়েন।

খেলা শুরুর আগ মুহূর্তে তিনি ইনজুরিতে পড়ায় হালকা চোট নিয়ে সেদিন মাঠে নামতে হয়েছিল ডর্টমুন্ডের বেলজিয়ান তারকা থর্গোন হ্যাজার্ডকে। দ্বিতীয়ার্ধে তাকেও চোট নিয়ে মাঠ ছাড়তে হয়। ৪-০ গোলে হারা এ ম্যাচে শালকের পিয়েরে-ক্ল্যায়ার তোদিবো ও আমিনে হারিত চোটে পড়েন।

প্রথম রাউন্ডে হফেনহাইমের সেবাস্তিয়ান রুডি ও ইলাস বেবো চোট পেয়েছেন। এ ছাড়া বরুশিয়া মনশেনগ্লাডবাখের মার্কাস থুরাম এবং হার্থা বার্লিনের সিলেন স্কেলবার্ড চোটে পড়ে ছিটকে গেছেন।