গোপালগঞ্জে আশ্রয় কেন্দ্রে আশ্রয় নিয়েছে চার শতাধিক মানুষ

Spread the love

বাদল সাহা, গোপালগঞ্জ প্রতিনিধি: সুপার সাইক্লোন ‘আম্পান’-মোকাবেলায় গোপালগঞ্জে সকল ধরনের প্রস্তুতি নিয়েছে জেলা প্রশাসন। ইতিমধ্যে টুঙ্গিপাড়া উপজেলার একটি আশ্রয় কেন্দ্রে আশ্রয় নিয়েছে চার শতাধিক মানুষ। এদিকে, আম্পানের প্রভাবে দমকা হওয়ার সাথে সাথে সকাল থেকে শুরু হয়েছে বৃস্টি।

জানাগেছে, জেলা প্রশাসনের উদ্যোগে ঘূর্ণিঝড় ‘আম্পান’ মোকাবেলা জেলার ৫টি উপজেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে প্রস্তুত করা হয়েছে ১৫৪টি আশ্রয় কেন্দ্র। ইতিমধ্যে টুঙ্গিপাড়া উপজেলার একটি আশ্রয় কেন্দ্রে চার শতাধিক মানুষ অশ্রয় নিয়েছেন। সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে তাদের জন্য শুকনো খাবারের ব্যবস্থা করা হয়েছে।

প্রতি উপাজেলায় একটি করে মেডিকেল টিমসহ উদ্ধার কাজের জন্য রেডক্রিসেন্টের সদস্য ও ফায়ার সার্ভিসের কর্মীদের প্রস্তুত রাথা রয়েছে। শুকনো খাবার ও সুপেয় পানির ব্যবস্থা করার পাশাপাশ জেলা জুরে সতর্কতামূলক মাইকিং করা হয়েছে।

“আম্পান” এর প্রভাবে বৃষ্টিপাত হওয়ায় বেকায়দায় পড়েছে দিন মজুরেরা। উঠতি বোরো ধানের ব্যাপক ক্ষতি হবার আশংকা করছেন কষকেরা।

অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক কাজী শহিদুল ইসলাম জানান, সুপার সাইক্লোন ‘আম্পান’-এর সম্ভাব্য ক্ষতি কাটিয়ে উঠতে সব ধরনের প্রস্তুতি রয়েছে। স্বেচ্ছাসেবকসহ ফায়ার সর্ভিস কর্মীদের প্রস্তুত রয়েছে। আশ্রয় কেন্দ্র আশ্রয় নেয়া মানুষের খাবারের জন্য শুকনো খাবার ও পানির ব্যবস্থা করা হয়েছে।