ফরিদপুরে কথিত স্বামী-স্ত্রী’র পেট থেকে বের করা হলো ইয়াবা

Spread the love

ফরিদপুর প্রতিনিধি: ফরিদপুরের ভাঙ্গা উপজেলার আজিমনগর ইউনিয়নের ব্রাহ্মণপাড়া গ্রাম থেকে মাদক ব্যবসায়ী স্বামী-স্ত্রীসহ তিনজনকে করেছে পুলিশ। পরে তাদের পেট থেকে বের করা হয় ১ হাজার ৫০ পিস ইয়াবা। এ ঘটনায় ভাঙ্গা থানায় মামলা হয়েছে। আটককৃতরা হলো, মিরাজ শেখ (৩০) ও তার কথিত স্ত্রী জাকিয়া সুলতানা (৩০) এবং মিঠুন মুন্সী (৩২)।

রবিবার দুপুরে ভাঙ্গা থানা পুলিশ জানায়, পেশাদার মাদক ব্যবসায়ী কথিত দম্পতি মিরাজ ও জাকিয়া সুলতানা টেকনাফ থেকে খুলনার উদ্দেশ্যে রওয়ানা হয়ে মাওয়াঘাটে পৌছাতে শনিবার রাত হয়ে যায়। এসময় কোন গাড়ী না পেয়ে তারা তাদের পূর্ব পরিচিত মিঠুন মুন্সীর বাড়ীতে রাতে অবস্থান নেয়।

পুলিশ গোপন সংবাদ পেয়ে মিঠুন মুন্সির বাড়ীতে অভিযান চালায়। তখন ঐ দম্পতিকে মিঠুনের ঘর থেকে আটক করে তাদের জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়। এক পর্যায়ে ধৃত দম্পতিকে এক্সরে ও আল্ট্রাসোনোগ্রাম করে পেটের ভেতর মাদক রয়েছে বলে নিশ্চিত হন।

তখন তাদের টয়লেট করিয়ে মিরাজের পেট থেকে পঞ্চাশটি করে সতেরটি পোটলা ও তার কথিত স্ত্রী জাকিয়ার পেট থেকে পঞ্চাশটি করে চারটি পোটলা থেকে মাট এক হাজার পঞ্চাশ পিছ ইয়াবা বের করা হয়। এ দম্পতির বিরুদ্ধে বিভিন্ন থানায় একাধিক মাদকের মামলা রয়েছে বলে জানায় পুলিশ।

অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (ভাঙ্গা সার্কেল) গাজী রবিউল ইসলাম জানান, মিরাজ ও জাকিয়া পেশাদার মাদক ব্যবসায়ী। টেকনাফ থেকে এক হাজার পঞ্চাশ পিছ ইয়াবার ২১টি প্যাকেট বানিয়ে দুইজনের পেটের ভেতর করে বহন করছিল।