থানকুনি পাতা করোনাভাইরাস থেকে মুক্তি মিলবে, রাতের ঘুম হারাম

Spread the love

কামরুজ্জামান শাহীন, ভোলা প্রতিনিধি: বাংলাদেশে ১০ জন করোনাভাইরাস রোগী পাওয়া গেছে এমন খবরে পুরো দেশে আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়েছে। বিভিন্ন জেলা-উপজেলায় বিষয়টি নিয়ে চলছে গুজব।
এদিকে করোনায় বিধ্বস্ত ইতালি, জার্মান, বাহারাইন, সৌদি আরব থেকে দলে দলে প্রবাসীরা আসায় এই আতঙ্কে নতুন মাত্রা যোগ হয়েছে গ্রাম-গঞ্জে। আতঙ্কিত জনতার অনেকেই নানা সময় নানা গুজবে কান দিচ্ছেন। করোনা থেকে মুক্তি মিলবে এমন তথ্য পেলেই তা যাচাই-বাছাই না করে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ছড়িয়ে দিচ্ছেন।

এমনই এক গুজবে গত রাতে ঘুম হারাম হয়েছে ভোলা জেলার উপজেলা থেকে শুরু করে গ্রাম-ঞ্জর বাসিন্দাদের। কেউ বলছে একজন প্রসিদ্ধ পীর সাহেব স্বপ্ন দেখেছেন এমন গুজবের ওপর ভিত্তি করে তথ্য রটে, তিনটি থানকুনি পাতা খেলে করোনাভাইরাস আর হবে না। মিলবে মুক্তি।
অনেকে ইতিমধ্যে চিবিয়ে খেয়েছেন সে পাতা। তারা বলছেন, পীরকে স্বপ্নে বলে দেওয়া এই থানকুনি পাতাই করোনাভাইরাসের প্রতিষেধক ঔষধ।

জানা গেছে, মঙ্গলবার দিবাগত রাত ১২ টা থেকে শুরু হয়েছে এ গুজব। অনেকে ফেসবুকে এ নিয়ে পোষ্ট দিচ্ছেন। কেউ কেউ থানকুনি পাতা সংগ্রহ করতে পেরেছেন জানিয়ে ছবিও পোষ্ট করেছেন। কেউ কেউ দেশ-বিদেশ থেকে স্বজন, বন্ধুদের ফোন করে ঘুম ভাঙাচ্ছেন এবং জরুরিভিত্তিতে থানকুনি পাতা খেতে বলেছেন।

স্থানীয় এক বাসিন্দা বলেন, জৈনপুরী পীর সাহেব স্বপ্নে দেখেছেন যে, তিনটি থানকুনি পাতার আর এক গ্লাস পানি খেলে করোনাভাইরাস হতে পারবে না। আর এই রাতের মধ্যেই পাতা তিনটি খেতে হবে।