গাইবান্ধা জেলার গোবিন্দগঞ্জে ঔষধ অধিদপ্তরের ভ্রাম্যমাণ আদালতে জরিমানা

Spread the love

রিপন মিয়া, গাইবান্ধা প্রতিনিধি: গাইবান্ধা জেলার গোবিন্দগঞ্জ উপজেলায় ভ্রাম্যমাণ আদালতে জরিমানা করা হয়।ঔষধ অধিদপ্তর গাইবান্ধা জেলার উদ্যোগে ভ্রাম্যমাণ আদালতে গোবিন্দগঞ্জে বিভিন্ন ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে ৭৫ হাজার টাকা জরিমানা প্রদান করেন। ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালনা করেন নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট ও গোবিন্দগঞ্জ সহকারী কমিশনার (ভুমি) মোঃ নাজির হোসেন।

এ সময় জেলা ঔষধ তত্বাবধায়ক মোঃ জাহিদুল ইসলাম ও গোবিন্দগঞ্জ থানা পুলিশের সঙ্গিফোর্সসহ উপস্থিত ছিলেন।গোবিন্দগঞ্জ হাসপাতাল রোডের ড্রাগ লাইসেন্স না থাকায় এবং ফিজিশিয়ান স্যাম্পল এবং মেয়াদ উত্তীর্ণ ঔষধ সংরক্ষণের অপরাধে ঔষধ আইন ১৯৪০ অনুযায়ী ১৮/সি ধারায় পপুলার মেডিসিন কর্নার প্রোঃ মোঃ আনোয়ার হোসেনকে ৩০০০০টাকা, সানি মেডিসিন কর্নার প্রোঃ মোঃ শাহিন মিয়াকে ৩০০০০টাকা, তাওহিদ মেডিসিন কর্নার প্রোঃ মোঃ আঃ মান্নানকে ৫০০০টাকা, বালুয়া বাজারে শারমিন ড্রাগ হাউজ প্রোঃ মোঃ শাহারুল ইসলামকে ১০,০০০টাকা করে মোট ৭৫,০০০ টাকা জরিমানা করা হয়।

পরে গাইবান্ধা জেলার গোবিন্দগঞ্জ উপজেলায় একটি জনসচেতনতামূলক আলোচনা সভা করা হয়। সভায় উপস্থিত ছিলেন জেলা ঔষধ তত্বাবধায়ক মোঃ জাহিদুল ইসলাম গোবিন্দগঞ্জ ড্রাগ লাইসেন্স মালিক সমিতির সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকসহ ফার্মসীর মালিক গন। সভায় মেয়াদ উত্তীর্ণ ঔষধের ব্যবস্থাপনা, নকল ও ভেজাল ঔষধ প্রতিরোধের উপায়, এন্টিবায়োটিকের সঠিক ব্যবহার ও রেজিস্টার সংরক্ষণের নিয়ম এবং ঔষধ ব্যবসার বিভিন্ন বিষয়ে বিস্তারিত আলোচনা করা হয়।