ফরিদপুরে দুর্বৃত্তের আগুনে পুড়ে গেলো প্রতিবন্ধীর দোকান

Spread the love

ফরিদপুর প্রতিনিধি: ফরিদপুরের মধুখালী উপজেলার মেগচামী ইউনিয়নে রাতের আধারে দুর্বৃত্তদের দেয়া আগুনে এক প্রতিবন্ধী ব্যক্তির শেষ সম্বল দু’টি দোকান ঘর সহ চারটি ব্যবসা প্রতিষ্ঠান পুড়ে গেছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। মঙ্গলবার ভোর রাতে মেগচামী ইউপি কার্যালয়ের সামনে বোর্ড বাজারে এ ঘটনা ঘটে। খবর পেয়ে ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা পৌছে আগুন নেভায়।

গোলাম মুসুল্লী নামের বাজারের এক ব্যবসায়ী জানান, তার মালিকানাধীন দোকানঘর ভাড়াটিয়া প্রতিবন্ধী রমজান শেখের (৫৪) একটি কম্পিউটারের, একটি মুুদি ও একটি ব্রয়লার মুরগীর দোকান করে। রাত সাড়ে তিনটার দিকে লোক মারফৎ তিনি অগ্নিকান্ডের খবর পান। তিনি বলেন, বাজারে ব্যবসায়ীক প্রতিযোগীতা নিয়ে প্রতিবন্ধী রমজান শেখের দোকানে আগুন দিয়ে পুড়িয়ে দেয়া হয়েছে।

এ ঘটনায় তিনি তাপস নামের একজনকে দায়ী করেন। বাজারের ব্যবসায়ী ও ৫নং ওয়ার্ড মেম্বার শফিকুর রহমান জানান, চুরিডাকাতি রোধে সম্প্রতি এক সভায় গ্রাম পুলিশের সাথে বাজারের ব্যবসায়ীদেরও রাতের বেলায় পাহারা দেয়ার সিদ্ধান্ত দেন থানার ওসি সাহেব। সে মতে গত রাতে ওই বাজারের ব্যবসায়ী রউফ শেখ, রনজিৎ বিশ^াস ও অমিত মজুমদার সহ গ্রাম পুলিশ তাপসের পাহারা ছিলো। তবে তাপস জানান, ঘটনার রাতে বাজারে তার ডিউটি ছিলোনা।

মধুখালী ফায়ার ষ্টেশনের কন্ট্রোল ডিউটিতে নিযুক্ত মিরাজ জানান, বৈদ্যুতিক শর্ট সার্কিট থেকে এ আগুন লাগে। ৫০ হাজার টাকার মতো ক্ষয়ক্ষতি রেকর্ড করা হয়েছে। তবে ক্ষতিগ্রস্থরা এর পরিমাণ আরো অনেক বেশি বলে জানান।

মধুখালী থানার ওসি আমিনুল ইসলাম বলেন, বিষয়টি জানতে পেরেছি। কেউ লিখিত অভিযোগ দিলে বিষয়টি খতিয়ে দেখবো।

স্থানীয়রা জানান, ক্ষতিগ্রস্থ প্রতিবন্ধী রমজান শেখের দুরাবস্থার কারণে স্থানীয়দের সহায়তায় তিনি দোকানগুলো চালু করেন। স্ত্রী ও দুই মেয়ের সংসারে এটিই তার একমাত্র অবলম্বন। গ্রামে ভিটের ৩ শতক জমি ছাড়া তার আর কোন সম্পদ নেই।