দিনাজপুর পল্লী বিদ্যুৎ সমিতি-২ কর্তৃক গ্রাহক হয়রানী

Spread the love

মোঃ আফজাল হোসেন, ফুলবাড়ী, দিনাজপুর প্রতিনিধি: পার্বতীপুর উপজেলার পূর্ব সুখদেবপুর গ্রামের মোঃ মোবারক হোসেন কে দিনাজপুর পল্লীবিদ্যুৎ সমিতি-২ এর পার্বতীপুর জোনাল অফিস চরম ভাবে হয়রানী করছে। ক্ষুদ্রু শিল্পের জন্য বিদ্যুৎ সংযোগের আবেদন করেও মিলছেনা বিদ্যুৎ সংযোগ।

দিনাজপুর জেলার পার্বতীপুর উপজেলার ৯ নং হামিদপুর ইউনিয়নের পূর্বসুখদেবপুর গ্রামের মৃত মফেজ উদ্দীন সরকারের পুত্র মোঃ মোবারক হোসেন তার মুরগির খামারে ক্ষুদ্রু শিল্পে বিদ্যুৎ সংযোগের জন্য ২৯ ডিসেম্বর ২০১৯ ইং তারিখে আবেদন করেন। যাহার ট্রাকিং আইডি নং-৪৪০৩১০৭৭৫২১৭৯২৯৭। আবেদন করার পর ৩০ ডিসেম্বর ২০১৯ ইং তারিখে আবেদন ফি ১১৫/- (একশত পনের) টাকা জমা দেন। যাহার নং-৪৭০৪৫৯।

উল্লেখ যে মোঃ মোবারক হোসন তার নিজ আবাসিক মিটার থেকে মুরগির খামারে লাইট জ্বালানোর কারণে পার্বতীপুর জোনাল অফিস এর মিটার রিডার মোঃ স্বাপন উৎকোচ চায়। উৎকোচ না পাওয়ার কারণে ডিসেম্বর ও জানুয়ারী মাসে মোট ৯ হাজার ৬ শত ৬৪ টাকা জরিমানা করেন। মোঃ মোবকারক হোসেন গত ২৬ ডিসেম্বর ২০১৯ ইং তারিখে ডিপুটি জেনারেল ম্যানেজার পার্বতীপুর জোনাল অফিস বরাবর জরিমানা মওকুফ করার জন্য আবেদন করেন।

পবরর্তীতে ০৪/০২/২০২০ ইং তারিখে মওকুফের জন্য আবার ও আবেদন করেন। কিন্তু দিনাজপুর পল্লীবিদ্যুৎ সমিতি-২ এর ডিপুটি জেনারেল ম্যানেজার পার্বতীপুর জোনাল অফিস তিন বার এলাকা তদন্ত করার পরেও কোন কার্যকারী পদক্ষেপ নিচ্ছেনা। তারবাড়ীর সংযোগ দিয়ে মুরগির ফার্ম অল্প কয়েকদিন চলার পর মিটার রিডার অভিযোগ দিলে তিনি সংযোগ বিচ্ছিন্ন করে দেন। এতে তার ফার্মের প্রায় ৭ শত মুরগি মারা যায়।
ফার্মের মালিক মোঃ মোবারক হোসেন এতে ব্যাপকভাবে ক্ষতিগ্রস্থ হয়। তিনি অভিযোগ করে বলেন পার্বতীপুর পল্লীবিদ্যুৎ সমিতির ডিজিএম মোঃ মিজানুর রহমান মিজান উৎকোচ দাবী করেন। উৎকোচ না পাওয়ার কারণে মোঃ মোবারক হোসেন কে নানা ভাবে হয়রানি করছেন।

তিনি এখন পর্যন্ত তার ক্ষুদ্রু শিল্পের আবেদন করেও বিদ্যুৎ সংযোগ মিলছেনা। তারা তাকে হয়রানি করার জন্য উল্টা কাগজপত্রে স্বাক্ষর নিয়ে চলে যান। এ ব্যাপারে পার্বতীপুর পল্লী বিদ্যুৎ সমিতি-২ এর ডিজিএম মিজানুর রহমান এর সাথে মোবাইল ফোনে যোগাযোগ করা হলে তিনি মোবাইল ফোন গ্রহণ করেননি। এ ব্যাপারে সরেজমিনে তদন্ত সাপেক্ষে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিতে পল্লী বিদ্যুৎ সমিতির উর্দ্ধতন কর্তৃপক্ষের আসু হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন মোঃ মোবারক হোসেন।