ভোটার যত বেশি কেন্দ্রে যাবে নৌকার ভোট ততই বাড়বে: আতিকুল ইসলাম

Spread the love

অনলাইন ডেস্ক: ভোটার যত বেশি কেন্দ্রে যাবে নৌকার ভোট ততই বাড়বে বলে মন্তব্য করেছেন ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশন (ডিএনসিসি) নির্বাচনে আওয়ামী লীগ মনোনীত মেয়র প্রার্থী আতিকুল ইসলাম।

শুক্রবার বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ে চিকিৎসাধীন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদেরকে দেখতে গিয়ে তিনি এ কথা বলেন।

এর আগে তিনি বনানী কবরস্থান মসজিদে জুমার নামাজ আদায় করেন। পরে বনানী কবরস্থানে শায়িত তার বাবা-মায়ের কবর জিয়ারত করেন। এ সময় তিনি ডিএনসিসির প্রয়াত মেয়র আনিসুল হকের কবরও জিয়ারত করেন।

শুক্রবার নির্বাচনী প্রচার ও জনসংযোগের সুযোগ না থাকায় নির্ধারিত কোনো কর্মসূচি ছিল না আতিকুল ইসলামের। তবে সকালেই তিনি উত্তরার বাসভবন থেকে বনানীতে তার প্রধান নির্বাচনী কার্যালয়ে যান। সেখানে দলীয় নেতাকর্মী ও অনুসারীদের তিনি নির্বাচন নিয়ে নানা পরামর্শ দেন। তাদের কাছ থেকে সমস্যার কথাও শোনেন। প্রত্যেকটি কেন্দ্রে যেন নেতাকর্মীরা থাকে সে ব্যাপারে তাদের অনুরোধ করেন আতিকুল ইসলাম। ভোটারদের অনুরোধ করে কেন্দ্রে নিয়ে যাওয়ারও পরামর্শ দেন। প্রতিটি এলাকার এজেন্ট তালিকাও তিনি পর্যবেক্ষণ করেন। সব ভোটারের বাসায় বাসায় ভোটার স্লিপ পৌঁছেছে কিনা সে ব্যাপারে খোঁজ-খবর নেন। বিভিন্ন থানা, ওয়ার্ড ও মহানগর আওয়ামী লীগের নেতাদের সঙ্গে ফোনে যোগাযোগ করেন এবং ওইসব এলাকায় নৌকার জন্য নির্বাচনের শেষ প্রস্তুতি কেমন তা জানতে চান।

বিকেলে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ে ওবায়দুল কাদেরকে দেখতে যান আতিকুল ইসলাম। এ সময় তিনি ওবায়দুল কাদেরের চিকিৎসার খোঁজ-খবর নেন।

পরে সাংবাদিকদের তিনি বলেন, ‘যত বেশি মানুষ ভোটকেন্দ্রে ভোট দিতে আসবে নৌকার বিজয় ততই নিশ্চিত হবে ইনশাল্লাহ। আপনারা সবাই সকাল সকাল পরিবার-পরিজন নিয়ে ভোটকেন্দ্রে এসে ভোট দেবেন।’ শেষ মুহূর্তে নির্বাচনের পরিবেশ সম্পর্কে আতিকুল ইসলাম বলেন, ‘এটি একটি অংশগ্রহণমূলক নির্বাচন। আপনারা দেখেছেন গত ১০ জানুয়ারি থেকে রাত নেই, দিন নেই, নাওয়া-খাওয়া, শৈত্যপ্রবাহ সব বাদ দিয়ে আমরা কিন্তু মাঠেই ছিলাম। ইলেকশনের আমেজ ধরে রাখার জন্য আমাদের দল এবং বিরোধী দলকে বলব, নির্বাচনে হারজিত থাকবেই। শেষ মুহূর্ত ভোটের মাঠে থাকবেন, ফলাফল নিয়ে যাবেন। নগরবাসীকে বলব, কালকে ছুটির দিন আপনারা সকলে গিয়ে ভোট দেবেন।’

ওবায়দুল কাদেরের শারীরিক অবস্থা সম্পর্কে আতিকুল ইসলাম বলেন, ‘দোয়া করি ওবায়দুল কাদের যেন সুস্থ হয়ে যান। সবাইকে অনুরোধ করব তার জন্য দোয়া করবেন। তিনি এখন অনেক ভালো এবং সুস্থ আছেন। ডাক্তারের মাধ্যমে জানতে পেরেছি, প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনা তাকে যেন কেউ বিরক্ত না করে। তিনি যেন সম্পূর্ণ রেস্টে থাকেন। এখন কোনো ধরনের শঙ্কা নেই। তিনি শঙ্কামুক্ত আছেন।’

হাসপাতাল থেকে বেরিয়ে তিনি আবারও নির্বাচনের শেষ মুহূর্তের প্রস্তুতির খোঁজ-খবর নেন। গাড়িতে চলাচলের সময়ও ফোনে বিভিন্ন এলাকায় তার নির্বাচনের দায়িত্ব পালনকারীদের সঙ্গে কথা বলেন। সমস্যা আছে কিনা জানতে চান। সমাধানের পরামর্শ দেন।