আওয়ামী লীগই বাইরে থেকে অস্ত্র ও কর্মী এনেছে: খন্দকার মোশাররফ

Spread the love

অনলাইন ডেস্ক: বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ড. খন্দকার মোশাররফ হোসেন বলেছেন, ঢাকা সিটি করপোরেশন নির্বাচনকে সামনে রেখে আওয়ামী লীগই অন্যান্য জেলা থেকে অস্ত্র আর কর্মী এনেছে। বিএনপির বিরুদ্ধে বাইরে থেকে অস্ত্রধারী গুণ্ডা আনার বিষয়ে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদেরের বক্তব্যকে ‘হাস্যকর’ বলার পাশাপাশি তিনি এ মন্তব্য করেন।

বুধবার রাজধানীর গোপীবাগে প্রয়াত মেয়র সাদেক হোসেন খোকার বাসায় বিএনপি নেতা খোন্দকার মোশাররফ এক সংবাদ সম্মেলনে ওবায়দুল কাদেরের বক্তব্যের নিন্দা করে বলেন, বিএনপির নেতাকর্মীরা পুলিশ ও আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর হয়রানিতে এমনিতেই বাড়িতে থাকতে পারছে না। এ অবস্থায় বাইরে থেকে লোক আনা বা কোনো অস্ত্র জোগাড় করা অসম্ভব। তাছাড়া এ ধরনের কাজ বিএনপি করেও না।

দক্ষিণে বিএনপির নির্বাচন পরিচালনা কমিটির আহ্বায়ক খন্দকার মোশাররফ অভিযোগ করেন, আওয়ামী লীগই বাইরে থেকে ৩০ লাখ নেতাকর্মী ঢাকা শহরে এনেছে। তাদের অস্ত্রশস্ত্রসহ আনা হয়েছে। তিনি বলেন, নির্বাচনে এখনও লেভেল প্লেয়িং ফিল্ড তৈরি হয়নি। প্রতিনিয়ত বিভিন্ন ওয়ার্ডে দায়িত্বপ্রাপ্ত নেতাকর্মীদের ভয় দেখানো হচ্ছে। নেতাকর্মীদের বাসাবাড়িতে ঢুকেও হুমকি-ধমকি ও ভয়ভীতি দেখানো হচ্ছে। এ বিষয়ে নির্বাচন কমিশনকে জানানো হলেও কোনো ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে না। এই নির্বাচন গতানুগতিক ও প্রহসনে পরিণত হলে এর দায়িত্ব সরকার ও একচোখা নির্বাচন কমিশনকেই নিতে হবে।

সংবাদ সম্মেলনে বিএনপির মেয়র প্রার্থী ইশরাক হোসেন বলেন, তারা তাদের সব দায়িত্ব পালন করবেন- যাতে ভোটাররা সব ভয়ভীতি ও হুমকি-ধমকি উপেক্ষা করে ভোটকেন্দ্রে গিয়ে নির্বিঘ্নে ভোট দিতে পারেন।

সংবাদ সম্মেলনে বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য মির্জা আব্বাস, ইকবাল হাসান মাহমুদ টুকু, ভাইস চেয়ারম্যান আবদুল্লাহ আল নোমান, নিতাই রায় চৌধুরী, চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা আবদুস সালাম, যুগ্ম মহাসচিব খায়রুল কবির খোকন, হাবিব উন নবী খান সোহেল প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।