গাজীপুরে বার্ষিক ক্রীড়া প্রতিযোগিতা ও পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠিত

Spread the love

আশিকুর রহমান সবুজ, গাজীপুর: ব্যাপক উৎসাহ-উদ্দীপনার মধ্য দিয়ে অনুষ্ঠিত হলো গাজীপুরের শ্রীপুর উপজেলার গাজীপুর ইউনিয়নের ঐতিহ্যবাহী শিক্ষা প্রতিষ্ঠান আবুল হাসেম মডেল একাডেমির ৫তম বার্ষিক ক্রীড়া প্রতিযোগিতা, সাংস্কৃতিক ও পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠান । ২৩ ও ২৪ জানুয়ারি ২০২০ইং হস্পতিবার ও শুক্রবার উপজেলার ফরিদপুর গ্রামে আবুল হাসেম মডেল একাডেমির  ক্যাম্পাস প্রাঙ্গণে দুই দিনব্যাপী এ ক্রীড়া প্রতিযোগিতা , সাংস্কৃতিক ও পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়। 

১ম দিন আবুল হাসেম মডেল একাডেমির সিনিয়র শিক্ষক রতন রানা ও ৫নং ওয়ার্ড যুবলীগ নেতা মনিরুজ্জামান খান’র উপস্থাপনায় সভাপতিত্ব করেন আবুল হাসেম মডেল একাডেমির সভাপতি ও দাতা আবুল হাসেম (পুলিশ),প্রধান অতিথি ছিলেন শ্রীপুর উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান মাহ্তাব উদ্দিন, উদ্বোধক হিসেবে ছিলেন, বিশিষ্ট ব্যবসায়ী আলহাজ্ব ইসমাঈল হোসেন,সম্মানিত অতিথি ছিলেন,আব্দুল আউয়াল বিশ্ব বিদ্যালয়ের দাতা সদস্য  আলহাজ্ব আব্দুল আউয়াল বেপারী, পতাকা উত্তেলন করেন,গাজীপুর ইউনিয়নের ৫নং ওয়ার্ড আওয়ামীলীগ নেতা আলহাজ্ব আবুল কাসেম খান,প্রধান অলোচক ছিলেন ফজলুল হক সানী।

২য় দিন শ্রীপুর উপজেলা আওয়ামী যুবলীগের সাহিত্য ও সাংস্কৃতিক সম্পাদক ইকবাল আহমেদ নিশাত ও মাহমুদুল হাসান সুমন’র উপস্থাপনায় উক্ত অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন প্রিন্সিপাল অফিসার অগ্রণী ব্যাংক শ্রীপুর শাখা নজরুল ইসলাম, প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন শ্রীপুর পৌরসভা মেয়র আলহাজ্ব আনিছুর রহমান। উদ্বোধক হিসেবে ছিলেন জুয়েল মাহ্মুদ জয়,আমন্ত্রিত অতিথি হিসেবে ছিলেন দৈনিক একুশে সংবাদ শ্রীপুর প্রতিনিধি টি.আই সানি প্রমুখ।

সার্বিক পরিচালনায় ছিলেন আবুল হাসেম মডেল একাডেমির প্রতিষ্ঠাতা পরিচালক ও প্রধান শিক্ষক আলমগীর হোসেন আলম, আবুল হাসেম মডেল একাডেমির প্রত্যেক শিক্ষক শিক্ষার্থী অভিভাবকসহ এলাকার গণ্যমান্য ব্যাক্তিবর্গ । প্রতিবছরের ন্যায় এবারও বিজয়ী ছাত্র/ছাত্রীদের মাঝে পুরস্কার বিতরণ করা হয় । 

আবুল হাসেম মডেল একাডেমির প্রতিষ্ঠাতা পরিচালক ও প্রধান শিক্ষক আলমগীর হোসেন আলম বলেন , ক্রীড়া প্রতিযোগিতা শিক্ষার একটি বড় অংশ। শিক্ষার পাশাপাশি খেলাধুলা করতে হবে। নিজের মেধাকে বিকশিত করতে হলে স্ব-শিক্ষায় শিক্ষিত হতে হবে। শিক্ষার্থীদের জীবনের লক্ষ্যে পৌঁছানোর জন্য পড়াশোনায় অধিকতর মনোযোগী হওয়ারও আহ্বান জানান তিনি । শিক্ষার মানোন্নয়নে ছাত্রছাত্রী, অভিভাবক ও শিক্ষকদের একযোগে কাজ করতে হবে। তাহলেই ভাল ফলের পাশাপাশি জ্ঞানার্জন সম্ভব হবে। তিনি আরো বলেন , ২০১৫ সালে শিক্ষাবঞ্চিত জণগোষ্ঠীর কথা মাথায় রেখে ৫জন শিক্ষক ও ১৮জন শির্ক্ষার্থী নিয়ে আবুল হাসেম মডেল একাডেমিক নামক এই শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের পথ চলা । বর্তমানে এই শিক্ষা প্রতিষ্টানে ১৬ জন শিক্ষক/শিক্ষিকা ও চার শতাধিক শিক্ষার্থী রয়েছে । এলাকাবাসীর সার্বিক সহযোগিতায় অব্যাহত থাকলে খুব শিগ্রই আবুল হাসেম মডেল একাডেমি জেলার প্রথম শ্রেণির একটি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে রূপান্তরিত হবে ইনশাল্লাহ্ ।