শহীদদের প্রতি বাইশাকান্দা ইউপি চেয়ারম্যান বি এম মাসুদ রানার গভীর শ্রদ্ধাঞ্জলী

মাহবুবুল আলম রিপন: ১৫ আগস্ট জাতীয় শোক দিবসে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ও তার পরিবারসহ সকল শহীদদের প্রতি বিনম্র শ্রদ্ধাঞ্জলী জানিয়েছেন বাইশাকান্দা ইউপি চেয়ারম্যান বি.এম. মাসুদ রানা।

শোকাবহ ১৫ আগস্ট। জাতির ইতিহাসে সবচেয়ে কলঙ্কিত দিন। জাতীয় শোক দিবস। জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪৪তম শাহাদাতবার্ষিকী। ১৯৭৫ সালের এই দিন জাতি হারিয়েছে তার গর্ব, আবহমান বাংলা ও বাঙালির আরাধ্য পুরুষ, স্বাধীন বাংলাদেশের স্থপতি বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে। এ দিনে বাঙালি জাতির ইতিহাসে কলঙ্ক লেপন করেছিল সেনাবাহিনীর কিছু বিপথগামী কর্মকর্তা আর ক্ষমতালিপ্সু কতিপয় রাজনীতিক। রাজনীতির সঙ্গে সামান্যতম সম্পৃক্ততা না থাকা সত্ত্বেও বঙ্গবন্ধু পরিবারের নারী-শিশুরাও সেদিন রেহাই পায়নি ঘৃণ্য কাপুরুষ এই ঘাতকচক্রের হাত থেকে। সেদিন বঙ্গবন্ধুর সঙ্গে আরও প্রাণ হারান তার সহধর্মিণী, তিন ছেলেসহ পরিবারের ১৮ জন সদস্য। বিদেশে থাকায় প্রাণে বেঁচে যান বঙ্গবন্ধুর দুই কন্যা বর্তমান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও শেখ রেহানা। জনমানস থেকে নিশ্চিহ্ন করার লক্ষ্যে ঘাতকরা ৪৪ বছর আগে যাকে হত্যা করেছিল, বাঙালির হৃদয়ে অবিনাশী হয়ে আছেন। দেশবাসী জাতীয় শোক দিবস পালনের মাধ্যমে, নানা কর্মসূচির পর্যায়ে তাকে স্মরণ করে। শ্রদ্ধা জানায়। রাষ্ট্রীয় মর্যাদায় দিনটি পালনে দেশজুড়ে নানা কর্মসূচি হাতে নেওয়া হয়েছে।

তারই ধারাবাহিকতায় বাইশাকান্দা ইউনিয়ন পরিষদের উদ্যোগে জাতীয় পতাকা অর্ধনমিত রাখা ও কালো পতাকা উত্তোলন, জাতির জনকের প্রতিকৃতিতে শ্রদ্ধাঞ্জলি নিবেদন, দোয়া-মাহফিল,আলোচনা সভা, আলোকচিত্র প্রদর্শনী, শিশু-কিশোর চিত্রাঙ্কন প্রতিযোগিতা, গরিব ও দুস্থদের মাঝে খাদ্য বিতরণ প্রভৃতি কর্মসূচি হাতে নেওয়া হয়েছে।

মতামত