কথামালা আর গানের সুবীর নন্দী স্মরণ

আবহে ভেসে বেড়াচ্ছিলো ‘দেখো আলোয় আলোয়, আকাশ দেখো আলোয় ভরা/ ও মহাসিন্ধু ওপার থেকে থেকে কি সঙ্গীত ভেসে আসে’। যার জন্য গানটি বাজছিলো গত ৭ মে তিনি পাড়ি জমিয়েছেন না ফেরার দেশে। তিনি শিল্পী সুবীর নন্দী। গানটির সঙ্গে সঙ্গে তার প্রতিকৃতি ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা জানান স্ত্রী পূরবী নন্দী ও ফাল্গুনী নন্দী।

এভাবেই শুক্রবার রাজধানীর ছায়ানট সংস্কৃতি-ভবন মিলনায়তনে শুরু হয় সাংস্কৃতিক সংগঠন শুদ্ধমঞ্চের আয়োজনে ‘তোমার গানের ছায়ায়’ শিরোনামে সুবীর নন্দীর স্মরণ সভা। এর পর ছিলো আলোচনা। এতে অংশ নেন কণ্ঠশিল্পী সৈয়দ আবদুল হাদী ও সঙ্গীত পরিচালক শেখ সাদী খান। সভাপতিত্ব করেন সংগঠনের সভাপতি কণ্ঠশিল্পী ফাতেমা তুজ জোহরা।

বক্তারা বলেন, সুবীর নন্দী ছিলেন একজন প্রকৃত শিল্পী। গানকে তিনি হৃদয় দিতে গাইতেন। অর্থের মোহের পেছনে না ছুটে আমৃত্যু সঙ্গীতের সাধনা করে গেছেন। তার কর্মকে সংরক্ষণ করতে হবে। তার কর্ম সংরক্ষিত হলে, নতুন প্রজন্ম সেখান থেকে শিক্ষা গ্রহণ করতে পারবে।

অনুষ্ঠানে মসিউদ্দিন খান সমীর ‘তুমি কেমন করে গান করো হে গুণি’ আবৃত্তি করেন ও গেয়ে শোনান। শিল্পী স্বরলিপির কণ্ঠে গীত হয় ‘তুমি নির্মল করো, মঙ্গল করো’, ‘সুরে সুরে তোমায় ছুঁয়ে যাই’ ও ‘খেলিছো এই বিশ্বলয়ে’। অনুষ্ঠানে আরও গান গেয়ে শোনান লিনু বিলতাহ, রাম চন্দ্র দাস ও অপু।

মতামত