মডার্ণ ভাদাইমা নামক ইউটিউব চ্যানেলটি অশ্লীলতায় ভরপুর

সেলিম রেজা,শেরপুর (বগুড়া)প্রতিনিধি ঃ সারা বিশ্ব যখন বিজ্ঞানের প্রযুক্তিতে এগিয়ে যাচ্ছে, ছোঁয়া পাচ্ছে আধুনিকতার। অসম্ভবকে সম্ভবে পরিণত করছে। স্যাটেলাইটের মাধ্যমে পুরো বিশ্বকে আমাদের হাতের মুঠোয় এনে দিয়েছে বর্তমান আধুনিক বিজ্ঞানীরা। অতীতে আমরা কোন তথ্য জানার জন্য দীর্ঘ দিন যাবৎ অপেক্ষায় থাকতাম। আজ আমরা অতি সহজেই সেই তথ্যগুলো স্যাটেলাইটের সাহায্যে পেয়ে থাকি। পূর্বের লোকেরা সাদা কালো টেলিভিশনের মাধ্যমে এবং রেডিও বেতারের মাধ্যমে খবর বিনোদন উপভোগ করত, তাও আবার এ্যন্টিনার মাধ্যমে। বর্তমানে আজ আমাদের বিনোদন হয়ে গিয়েছে সহজ পণ্য। কারণ, ইউটিউব, ফেইসবুক, হটস এ্যাপ, ইমো, ম্যাসেঞ্জার ইত্যাদি দ্বারা আমরা সহজেই কোনো বিষয়ে তথ্য সঙ্গে সঙ্গে জানতে পারি। তবে আজ এই আধুনিক বিনোদন মাধ্যম হয়ে পড়েছে বর্তমান সমাজের অভিশাপ। বিলুপ্ত হতে চলেছে এ সমাজের লজ্জাবোধ, হারিয়ে ফেলছে চক্ষু লজ্জা। সম্প্রতি মডার্ণ ভাদাইমা নামক একটি ইউটিউব চ্যানেল এর মাধ্যমে আমাদের কমেডি নামক যেসব ভিডিও দেখাচ্ছে তা সমাজের তরুণদের জন্য অপ্রীতিকর ও মারাত্মক অভিশাপ। কারণ, মডার্ণ ভাদাইমা চ্যানেলে ভিডিও অশ্লীল দ্বারা ভরপুর। এই চ্যানেলে যেসব কমেডি নামক ভিডিও দেখানো হয় তা উঠতি বয়সী তরুণ-তরুণীদের জন্য অত্যন্ত ভয়াবহ আকার ধারণ করছে। এতে সাংস্কৃতিক ও বিনোদন জগৎ ধ্বংসের পথে এগিয়ে যাচ্ছে। শুধু তাই নয়, বর্তমান সমাজের তরুণ-তরুণীদের চরিত্রে দাগ পড়ছে। বর্তমান সুশীল সমাজ বলছে এভাবে যদি সামাজিক মাধ্যমে এসব ভিডিও তৈরি করা হয় এবং প্রচার করা হয়, তাহলে দেশের সাংস্কৃতিক অঙ্গনে বড় ধরনের ভয়াবহ প্রভাব পড়বে। তাই তথ্য প্রযুক্তি আইনে এসব অপ্রীতিকর, অশ্লীল নামক ইউটিউব চ্যানেল সহ বিভিন্ন বিনোদন মাধ্যমের বিরুদ্ধে যথাযথ ব্যবস্থা নিতে হবে। নইলে এই সমাজের তরুণ-তরুণীরা এসব ভিডিও দেখে নানা ধরনের অপরাধের সঙ্গে জড়িয়ে পড়বে। তাই কর্তৃপক্ষ এসব বিষয়ের উপর জরুরীভাবে নজরে আনা উচিত।

মতামত