দৈনিক কাফেলা সম্পাদক আমিনা বেগম আর নেই

শেখ আমিনুর হোসেন, সাতক্ষীরা ব্যুরো চীফ: সাতক্ষীরার প্রথম সংবাদপত্র দৈনিক কাফেলা সম্পাদক ও অবসরপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষিকা আমিনা বেগম আর নেই। (ইনা লিল্লাহি—–রাজেউন)। মত্যুকালে তার বয়স হয়েছিল ৭৭ বছর। তিনি বার্ধক্যজনিত নানা রোগে ভুগছিলেন।

বুধবার ভোরে তিনি ঢাকার হলি ফ্যামিলি রেড ক্রিসেন্ট মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান। আমিনা বেগম দৈনিক কাফেলার প্রতিষ্ঠিাতা সম্পাদক বাংলাদেশ সাংবাদিক সমিতির কেন্দ্রীয় সভাপতি দেশ বরণ্য শিক্ষানুরাগী সাতক্ষীরা প্রেসক্লাবের সাবেক সভাপতি মরহুম আব্দুল মোতালেব এর সহধর্মিনী। ২০০২ সালে আব্দুল মোতালেব এর মৃত্যুর পর থেকে আমেনা বেগম পত্রিকাটি সম্পাদনার দায়িত্ব নছন। তিনি ছিলেন সাতক্ষীরা সরকারি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের অবসরপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষিকা। মৃত্যুকালে তিনি দুই পুত্র ও পাঁচকন্যা অসংখ্য আত্মীয় স্বজন ও গুনগ্রাহী রেখে গেছেন। তার মরদেহ সাতক্ষীরায় আনার পর রসুলপুল সরকারি কবরস্থানে তার স্বামী আব্দুল মোতালেব এর পাশে দাফন করা হবে। এ দিকে দৈনিক কাফেলা সম্পাদক ও অবসরপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষিকা আমিনা বেগমের মৃত্যুতে তার বিদেহী আত্মার মাগফিরাত কামনা এবং শোকার্ত পরিবারের প্রতি গভীর সমবেদনা জানিয়েছে সাতক্ষীরার বিভিন্ন রাজনৈতিক, সাংবাদিক, সামাজিক ও সাংস্কৃতিক সংগঠনের নেতৃবৃন্দরা।

বিবৃতিদাতারা হলেন, সাতক্ষীরা-১ আসনের সংসদ সদস্য এ্যাড: মুস্তফা লুৎফুল্লাহ, সাতক্ষীরা-২ আসনের সংসদ সদস্য বীর মুক্তিযোদ্ধা মীর মোস্তাক আহমেদ রবি, সাতক্ষীরা-৩ আসনের সংসদ সদস্য সাবেক স্বাস্থ্য মন্ত্রী আ ফ ম রুহুল হক, সাতক্ষীরা-৪ আসনের সংসদ সদস্য এসে এমন জগলুল হায়দার, সাতক্ষীরা জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি মুনসুর আহমেদ, সাধারণ সম্পাদক ও জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আলহাজ্ব মোঃ নজরুল ইসলাম।

সাতক্ষীরার সাংবাদিক সংগঠনের মধ্যে বিবৃতি দিয়েছেন তারা হলেন, সাতক্ষীরা প্রেসক্লাবের পক্ষে সভাপতি অধ্যাপক আবু আহমেদ, সহ-সভাপতি আব্দুর ওয়াজেদ কচি, সাধারণ সম্পাদক মো: আব্দুল বারী, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক গোলাম সরোয়ার, সাংগঠনিক সম্পাদক মো: রবিউল ইসলাম, অর্থ-সম্পাদক মোশাররফ হোসেন, সাহিত্য সংস্কৃতি ও ক্রীড়া সম্পাদক আমিনা বিলকিস ময়না, দপ্তর সম্পাদক আহসানুর রহমান রাজীব, নির্বাহী সদস্য আব্দুস সামাদ, ইব্রাহিম খলিল, কৃষ্ণ মোহন ব্যনার্জী, অসীম বরণ চক্রবর্তী। সাতক্ষীরা জেলা সাংবাদিক ফোরাম (রেজিঃ নং ৫৮৩/০৪) এর পক্ষে সভাপতি মোঃ শহিদুল ইসলাম (দৈনিক প্রবাহ), সাধারন সম্পাদক শেখ আমিনুর হোসেন (দৈনিক তৃতীয় মাত্রা ও দৈনিক পত্রদূত), সিনিয়র সহ-সভাপতি মোশাররফ হোসেন আব্বাস (সাপ্তাহিক দখিনার দূত), সহ-সভাপতি মুক্তিযোদ্বা কাজী নাছির উদ্দীন (দৈনিক আমার সংবাদ), যুগ্ন-সম্পাদক শেখ বেলাল হোসেন (দৈনিক গণজাগরণ ও দৈনিক পত্রদূত), সাংগঠনিক সম্পাদক মোঃ জিয়াউর রহমান জিয়া (দৈনিক বঙ্গজননী), অর্থ সম্পাদক মোতাহার নেওয়াজ মিনাল (দৈনিক কাফেলা), ক্রীড়া ও সাংস্কৃতিক সম্পাদক মাহফিজুল ইসলাম আক্কাজ (দৈনিক আজকের সাতক্ষীরা), কার্য্য নির্বাহী সদস্য মোঃআবুল কালাম (সাপ্তাহিক মুক্তস্বাধীন), আনিছুর রহমান তাজু (দৈনিক যুগের বার্তা), আরীফ মাহমুদ (দৈনিক যায়যায়দিন, দৈনিক পত্রদূত), মোঃ আব্দুল মতিন (দৈনিক যায়যায়দিন, দৈনিক দেশ সংযোগ) মোঃ হেলাল উদ্দীন (ক্রাইম প্রতিদিন, সিপি টি ভি), কাজী ফখরুল ইসলাম রিপন (দৈনিক সোনালীবার্তা) ও এ এইচ এম তুমু (দৈনিক তৃতীয় মাত্রা)।

বিভিন্ন রাজনৈতিক, সামাজিক ও সাংস্কৃতিক সংগঠনের পক্ষে বিবৃতি দিয়েছেন তারা হলেন,
নলকুড়া নাট্যগোষ্ঠির প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি শেখ আলমগীর হোসেন, সাধারণ সম্পাদক শেখ আমিনুর হোসেন, নলকুড়া মিউজিক্যাল একাডেমির পরিচালক মো. আব্দুল মতিন, নলকুড়া তরুন সংঘের সভাপতি সাংবাদিক শেখ আমিনুর হোসেন, সাধারণ সম্পাদক মীর কাইয়ুম আলী পিন্টু, বাংলাদেশ রেস্তোরা মালিক সমিতি সাতক্ষীরা জেলা শাখার সভাপতি আলহাজ্ব মো. নূরুল ইসলাম, সাধারণ সম্পাদক শেখ লুৎফর রহমান, কদমতলা বাজার কমিটি’র সভাপতি মো. আব্দুল মান্নান, সাধারণ সম্পাদক মো.মেহেদি হাসান, ১৩নং লাবসা ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ’র সভাপতি এড. মুস্তাফিজুর রহমান শাহনেওয়াজ, সাধারণ সম্পাদক আবু সুফিয়ান সজল, জেলা শ্রমিক লীগের সহ-সভাপতি ও সাবেক ছাত্রলীগ নেতা এড.তামিম আহম্মেদ সোহাগ, সদর উপজেলা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি আহসান হাবিব লিমু, ১৩নং লাবসা ইউপি সদস্য ও সদর উপজেলা যুবলীগের সহ-সভাপতি গোলাম কিবরিয়া বাবু, সাতক্ষীরা জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সহ-সম্পাদক ও ১৩নং লাবসা ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সভাপতি শেখ রিজভী আহমেদ প্রমুখ নেতৃবৃন্দ।

মতামত