উন্নয়ন অব্যাহত রাখতে নৌকায় ভোট দিন-ফারহানা সুমি


নুরনবী ইসলাম মানিক, নীলফামারী প্রতিনিধি •


একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে নীলফামারী-১ (ডোমার-ডিমলা) আসনে নৌকার মাঝি হতে ব্যাপক জনসংযোগ চালিয়ে যাচ্ছেন কেন্দ্রীয় মুক্তিযোদ্ধা সংসদ সন্তান কমান্ড কেন্দ্রীয় কমিটির সাধারন সম্পাদক (কল্যাণ ও পুনর্বাসন) এবং বাংলাদেশ আওয়ামী যুব মহিলা লীগের কেন্দ্রীয় কমিটির সহ-শিক্ষা, প্রশিক্ষণ ও পাঠাগার বিষয়ক স¤পাদক সরকার ফারহানা আক্তার সুমী। নৌকার বিজয় সুনিশ্চিত করতে বিভিন্ন এলাকায় সভা-সমাবেশ করে বর্তমান সরকারের উন্নয়নের বার্তা জনগণের মাঝে পৌঁছে দিচ্ছেন তিনি। সাধারণ মানুষকে বোঝাচ্ছেন, গণতন্ত্র সুপ্রতিষ্ঠিত, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার হাতকে শক্তিশালী করতে, দেশের উন্নয়ন অব্যাহত রাখতে আবারও নৌকায় ভোট দিতে হবে। দেশের উন্নয়ন চাইলে আওয়ামীলীগ ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার বিকল্প নেই। তাই আওয়ামীলীগ সরকার বারবার দরকার।

বুধবার(৭ই নভেম্বর) সন্ধ্যায় নির্বাচনী এলাকা ডিমলা উপজেলার নাউতারা ইউনিয়ন পরিষদ সংলগ্ন সোনামনির ডাঙ্গার মাঠে মুক্তিযোদ্ধা সন্তানদের আয়োজনে আওয়ামীলীগ সরকারের উন্নয়ন প্রচারে জনসভায় বক্তব্য রাখেন সুমী। সমাবেশে মানুষের ব্যাপক উপস্থিতি দেখা যায়।
এ সময় সুমী আওয়ামীলীগ সরকারের ১০ বছরের বিভিন্ন উন্নয়নের দিক তুলে ধরে বলেন, এখন জ্বালাও, পোড়াও, সন্ত্রাসের সময় নয়। এখন উন্নয়নের সময়। বর্তমান সরকার ক্ষুধা ও দারিদ্রমুক্ত ডিজিটাল বাংলাদেশ গড়ার লক্ষ্যে কাজ করে যাচ্ছে। আর অন্যদিকে আসন্ন একাদশ সংসদ নির্বাচনে যুদ্ধাপরাধী জামায়াত-শিবিরকে সঙ্গে নিয়ে মানুষ পুড়িয়ে মারার পুনরায় চক্রান্ত করছে বিএনপি। দেশে শান্তি বজায় রাখতে হলে যেকোন মূল্যে ঐকবদ্ধ হয়ে উন্নয়ন বিরোধী এই অপশক্তির বিরুদ্ধে রুখে দাড়াতে হবে । এদের রুখতে না পারলে স্বাধীনতা বিরোধী সেই অপশক্তি বঙ্গবন্ধুর সোনারবাংলা ও শেখ হাসিনার ফুলের বাগান বাংলাদেশকে পুনরায় পাকিস্তান বানানোর পায়তারা করবেন। তাই সুমী আসন্ন একাদশ সংসদ নির্বাচনে শেখ হাসিনাকে পুনরায় প্রধানমন্ত্রী হিসেবে দেখতে দলমত নির্বিশেষে সকলের প্রতি নৌকা প্রতিকে ভোট প্রার্থনা করেন।

সুমি আরো বলেন, বঙ্গবন্ধুর আদর্শে মুক্তিযুদ্ধের স্বপক্ষের চেতনায় শেখ হাসিনার নেতৃত্বে আমি সাধারণ মানুষের জন্য রাজনীতি করছি। আমার রাজনীতির সকল ভাবনা বঙ্গবন্ধু, শেখ হাসিনা ও সাধারণ মানুষকে ঘিরে। সাধারণ মানুষ আমাকে চায় বলেই আমি আওয়ামী লীগের মনোনয়ন প্রত্যাশি। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা মনোনয়ন প্রদানের ক্ষেত্রে ক্লিন ইমেজ ও তরুনদের প্রাধান্য দিবেন। সে ক্ষেত্রে আমিও মনোনয়ন পেতে আশাবাদী।
নাউতারা ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের আইন বিষয়ক সম্পাদক আব্দুস সামাদের সভাপতিত্বে এ সময় বক্তব্য রাখেন, কেন্দ্রীয় তাঁতীলীগের শ্রম বিষয়ক সম্পাদক, ডিমলা সদর ইউপি’র সাবেক চেয়ারম্যান আলহাজ্ব রফিজুল ইসলাম, বালাপাড়া ইউপি’র সাবেক চেয়ারম্যান জাহিদুল ইসলাম চৌধুরী, ডোমার পাঙ্গা মটুকপুর ইউপি’র সাবেক চেয়ারম্যান আব্দুল হাকিম ভুট্টু, ডিমলা উপজেলা আওয়ামীলীগের সদস্য মোফাখখারুল ইসলাম পিনু, মুক্তিযোদ্ধা আজহারুল ইসলাম ,মুক্তিযোদ্ধা ফকরুজ্জামান, দিনাজপুর সরকারী কলেজের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি এমএ বারী সুর্য, ডিমলা উপজেলা যুবলীগের সাবেক যুগ্ন সাধারন সম্পাদক শাহআলম, ডিমলা উপজেলা ছাত্রলীগের সাবেক সফল সাধারন সম্পাদক উত্তম কুমার রায়, জালাল উদ্দিন স্বাধীন, ডিমলা সদর ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সাবেক সাধারন সম্পাদক নুরনবী ইসলাম মানিক, প্রমুখ।

উল্লেখঃ যে সুমী ডোমার উপজেলার ভোগডাবুড়ি ইউনিয়নের চিলাহাটির বাসিন্দা ও ১৯৭১ সালের মুক্তিযুদ্ধের ৬নং সেক্টরের যুদ্ধকালীন সময়ে কোম্পানী কমান্ডার বীর মুক্তিযোদ্ধা গোলাম রব্বানীর মেয়ে। তিনি রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় থেকে ফার্মেসিতে ¯œাতক কোর্স শেষ করেছে। ছাত্রজীবনে সুমী রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রলীগের সহ-সভাপতি ছিলেন

মতামত