একদিকে আলোচনা আরেকদিকে আন্দোলন বোধগম্য নয়: প্রধানমন্ত্রী


আলোকিত দেশ প্রতিবেদক •


প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা— ফাইল ছবি

আলোচনায় বসার পাশাপাশি আন্দোলন কর্মসূচি চালিয়ে যাওয়ার ঘোষণা দেওয়ায় জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের সমালোচনা করে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, ‘একদিকে আলোচনা করবে আবার, আরেকদিকে আন্দোলনের কর্মসূচি দেওয়া— এটা কী ধরনের সংলাপ, সেটা আমাদের কাছে বোধগম্য না। জানি না, দেশবাসী জাতি এটা কীভাবে নেবে।’

জেল হত্যা দিবস উপলক্ষে শনিবার রাজধানীর ফার্মগেটের কৃষিবিদ ইনস্টিটিউশন মিলনায়তনে আওয়ামী লীগ আয়োজিত আলোচনা সভায় তিনি একথা বলেন।

সবার অংশগ্রহণে সুষ্ঠুভাবে আগামী সংসদ নির্বাচন করার লক্ষ্যেই সরকার সংলাপে বসেছে— এমন মন্তব্য করে প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘দেশের মানুষ তাদের মনের মতো সরকার বেছে নিক— সেই চিন্তা করেই কিন্তু আমরা সংলাপে বসেছি। আলোচনা করেছি। এরপর আরো অনেকের সঙ্গে আলোচনা করবো। এরকম সুন্দর একটি পরিবেশে আলোচনা হয়েছে।’

জাতীয় ঐক্যজোটের বিভিন্ন দাবি প্রসঙ্গে তিনি বলেন, ‘তাদের দাবি তারা জানিয়েছেন। আমাদের যেটা মানা সম্ভব আমরা বলেছি সেটা করবো। তারা জানিয়েছে, রাজবন্দিদের মুক্তি চায়। আমরা বলেছি, রাজবন্দিদের তালিকা দিন। তাদের বিরুদ্ধে যদি কোনো খুনের মামলা না থাকে, যদি কোনো ক্রিমিনাল অফেন্স তারা না করে থাকে তাহলে অবশ্যই তাদের ছেড়ে দেওয়া হবে।’

এ প্রসঙ্গে শেখ হাসিনা আরও বলেন, ‘আমরা কাউকে রাজনৈতিক কারণে গ্রেফতার করি নাই। তাই যদি করতাম তাহলে খালেদা জিয়া যখন ২০১৫ সালে মানুষ পুড়িয়ে পুড়িয়ে মানুষ মারল, তখনই তাকে গ্রেফতার করতে পারতাম।’

নির্বাচন কমিশন পুনর্গঠনে বিরোধী দলগুলোর দাবি প্রসঙ্গে প্রধানমন্ত্রী বলেন, সবার মতামত নিয়েই নির্বাচন কমিশন গঠন হয়েছে। তাই কমিশনের নিরপেক্ষতা নিয়ে প্রশ্ন তোলার কোনো যৌক্তিকতা নেই।

জনগণই ভোটের মালিক উল্লেখ করে তিনি বলেন, ‘আগামী নির্বাচন অবাধ হবে, এতে কোনো সন্দেহ নেই।’

মতামত