সাবেক ছাত্রলীগ নেতাকে কুপিয়েছে গুরুতর আহত সরিষাবাড়ীতে অস্ত্রসহ ইউপি সদস্য গ্রেফতার

সরিষাবাড়ী (জামালপুর) প্রতিনিধিঃ জামালপুরের সরিষাবাড়ীতে ইউপি সদস্য কর্তৃক দুই সাবেক ছাত্রলীগ নেতাকে কুপিয়ে গুরুতর আহত করে। গতকাল বুধবার সকালে উপজেলার আওনা ইউনিয়নের পাখিমারা দক্ষিনপাড়া গ্রাম এ ঘটনা ঘটে। সাবেক দুই ছাত্রলীগ দুই গুরুতর আহত করার ঘটনায় উপজেলা আওয়ামীলীগ ও অঙ্গ সংগঠনের দলীয় নেতা-কর্মীরা যমুনা সার কারখানা এলাকা টায়ার জ্বালিয়ে সড়ক অবরোধ ও দেশীয় অস্ত্র সজ্জে বিক্ষোভ মিছিল করে। সংবাদ পেয়ে একটি পিস্তল ও ধারালো অস্ত্রসহ একজনকে গ্রেফতার করে পুলিশ।

পুলিশ সূত্রে জানা যায়, তারাকান্দি যমুনা সার কারখানা এলাকায় চাঁদাবাজি কর্মকান্ড চালিয়ে আসছিল রাজা মিয়াসহ ৪-৫ জনের একটি দল। কারখানা এলাকা ত্রাসের সৃষ্টি করে আসছিল এ সন্ত্রাসী দল। ফলে এর প্রতিবাদ জানায় সাবেক ছাত্রলীগ নেতা ও পৌরসভার লাইসেন্স পরিদর্শক মারুফ হোসেন এবং ছাত্রলীগ নেতা লালচাঁন মিয়া। এতে ক্ষুব্ধ হয়ে উঠে রাজা মিয়া ও তার একটি সশস্ত্র দল। এ নিয়ে বুধবার সকালে মেন্দারবেড় গ্রামে নিজ বাড়ী থেকে পৌরসভা র্কাযালয়ে উদ্যেশে যাওয়ার পথে মারুফ হোসেন ও লালচাঁন মিয়ার ওপর হামলা চালায়।

হামলা চালিয়ে এলোপাথারী ধারালো অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে ওই দুজনকে গুরুতর আহত করে। পরে স্থানীয় লোকজন আহতদেরকে সরিষাবাড়ী স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে এলে কর্তব্যরত চিকিৎসক ময়মনসিংহ মেডিকেল করেজ হাসপাতালে প্রেরন করেন। এর প্রতিবাদে ও সন্ত্রাসীদের গ্রেফতার দাবিতে আ’লীগ দলীয় নেতাকর্মীরা যমুনা সার কারখানা, কান্দার পাড়া ও জগন্নাথগঞ্জ ঘাট এলাকা সড়কে কাঠের গোলাই ফেলে, টায়ারে আগুন জালিয়ে ১ঘন্টা ব্যাপী সড়ক অবরোধ করে রাখে এবং বিক্ষোভ মিছিল করতে থাকে। পরে সরিষাবাড়ী ও তারাকান্দি তদন্ত কেদ্রের পুলিশ মেন্দারবেড় গ্রামে অভিযান চালিয়ে একটি পিস্তল ও ধারালো অস্ত্রসহ রাজা মিয়া ওরফে রাজা মাস্তানকে গ্রেফতার করে। গ্রেফতারকালে এসআই ইদ্রিস হোসাইনকে ধারালো অস্ত্র দিয়ে আঘাত করে পালানো চেষ্টা চালায় সন্ত্রাসী রাজা মিয়া।

উপজেলা আওনা ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সিনিয়র সহ-সভাপতি আমজাদ হোসেন ও উপজেলা ছাত্রলীগের সাধারন সম্পাদক মোহাম্মদ আল-মামুন বলেন, সরিষাবাড়ী পৌরসভার লাইসেন্স পরিদর্শক ও সাবেক উপজেলা ছাত্রলীগের সদস্য মারুফ হোসেন এবং আওনা ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের যুগ্ন-সাধারন সম্পাদক লালচাঁন মিয়াকে ছুরি দিয়ে এলোপাথারী কুপিয়েছে সন্ত্রাসী রাজা মিয়া।

পৌর মেয়র রুুকনুজ্জামান বলেন, মারুফ হোসেন পৌরসভার লাইসেন্স পরিদর্শকের দায়িত্বে রয়েছেন। তার অবস্থা আশঙ্কাজনক চিকিৎসা নিয়ে ব্য¯ত আছি । সুস্থ্য হওয়ার পর কর্মসূচী দিবো।

সরিষাবাড়ী থানার ওসি রেজাউল ইসলাম খান বলেন, পৌর কর্মচারী ও আ’লীগ নেতাকে কুপিয়ে আহত করার ঘটনায় সন্ত্রাসী রাজা মিয়াকে একটি পিস্তল ও ধারালো অস্ত্রসহ গ্রেফতার করা হয়েছে। গ্রেফতারকালে এসআই ইদ্রিস হোসাইন আহত হয়েছেন।

মতামত