চাটখিলে প্রথম শ্রেণির ছাত্রীকে ধর্ষণের চেষ্টা থানায় অভিযোগ

সালাহ উদ্দিন সুমন,নোয়াখালী • নোয়াখালী চাটখিল উপজেলার ফাওড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ৪র্থ শ্রেণির কর্মচারী নূর হোসেন সবুজের বিরুদ্ধে একই বিদ্যালয়ের প্রথম শ্রেণির ছাত্রী (৬) কে ধর্ষণ চেষ্টার অভিযোগ পাওয়া গেছে। ঘটনাটি ঘটেছে গত ২৬ জুলাই সকালে।

ছাত্রী মেহনাজের মা জোসনা আক্তার রবিবার সন্ধায় চাটখিল থানায় এ ব্যাপারে অভিযোগ দায়ের করেছেন। অভিযোগে জানা যায়, ফাওড়া সরকারি প্রাথামিক বিদ্যালয়ের প্রথম শ্রেণির ছাত্রী মেহনাজ ২৬ শে জুলাই সকালে স্কুলের পাশ^বর্তী এক শিক্ষকের কাছে প্রাইভেট পড়তে যাওয়ার সময় স্কুলের দপ্তরি সবুজ কৌশলে তাকে স্কুলে তার শয়ন কক্ষে নিয়ে যায়। কক্ষে নিয়ে দরজা বন্ধ করে জোর পূর্বক ঐ ছাত্রীর পরনের কাপড় খুলে মুখে কম্বল গুজে তাকে ধর্ষণের চেষ্টা চালায় এবং তার গলা টিপে ধরে। ছাত্রীর চিৎকারে সে ধর্ষণে ব্যর্থ হয়। পরবর্তীতে এ ঘটনা কাউকে বললে খুন করবে বলে হুমকি দিয়ে তাকে ছেড়ে দেয়।

এ ঘটনার পর ছাত্রীটি ভয়ে পরপর দুই দিন প্রাইভেট পড়তে না যাওয়ায় তার মা তাকে জিজ্ঞাসা করলে সে তার সাথে ঘটে যাওয়া নেক্কারজনক ঘটনাটি খুলে বলে। পরে ছাত্রীটির অভিভাবকরা ঘটনাটি স্কুলের প্রধান শিক্ষককে জানায়। প্রধান শিক্ষক বিষয়টি উপজেলা শিক্ষা অফিসার আবুল ফজলকে অবহিত করেন। শিক্ষা অফিসার তাৎক্ষনিক রোববার বিকেলে ৩ জন সহকারি শিক্ষা অফিসার জেহাদুল ইসলাম, এবিএম নুরুজ্জামান ও শাহাদাত হোসেনকে ঘটনা তদন্তের জন্য পাঠান। তদন্তকারী কর্মকর্তাগণ প্রাথমিক তদন্তে ঘটনার সত্যতার প্রমাণ পান।

পরে রোববার সন্ধ্যায় ছাত্রীটির মা চাটখিল থানায় অভিযোগ দায়ের করেন। এ ঘটনায় এলাকায় উত্তেজনা বিরাজ করছে। এ ব্যাপারে স্কুলের ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষিকা সবিতা রানীর সাথে কথা বললে তিনি ঘটনার সত্যতা স্বীকার করেন। এ দিকে শিক্ষা কর্মকর্তা আবুল ফজল জানান, প্রাথমিক তদন্তে ঘটনার সত্যতা পাওয়ায় অভিযুক্ত দপ্তরী সবুজকে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়েছে। চাটখিল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা অভিযোগ প্রাপ্তির কথা স্বীকার করে বলেন, তদন্ত পূর্বক ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

মতামত