কুড়িগ্রামে শীতে নষ্ট হচ্ছে বোরো বীজ তলা

Spread the love

কুড়িগ্রাম প্রতিনিধি: তীব্র শীত আর ঘন কুয়াশার কারণে নষ্ট হয়ে যাচ্ছে ইরি বোরো মৌসুমের বীজতলা। কাজে আসছে না কোনো ওষুধ কিংবা কৃষি বিভাগের পরামর্শ। ইতোমধ্যে আগে বোনা বীজতলা হলুদ হয়ে গেছে। পরে বোনা বীজতলায় গজায়নি চারা। দিনরাত বীজতলা পরিচর্যা করেও সুফল পাচ্ছেন না কৃষক। এমন চিত্র কুড়িগ্রামের ৯টি উপজেলার বীজতলার।

কোল্ড ইনজুরিতে আক্রান্ত হয়ে বীজতলা নষ্ট হয়ে যাওয়ায় ইরি বোরো আবাদের লক্ষ্যমাত্রা অর্জন নিয়ে শঙ্কা প্রকাশ করছেন কৃষকরা। চাষের সময় চারা সঙ্কট দেখা দেয়ার আশংকাও করছেন তারা।জেলার নাগেশ্বরী উপজেলার কৃষক বাবু মিয়া জানান, চলতি মৌসুমে ১০ বিঘা জমিতে বোরো চাষের চিন্তা ছিলো কিন্তু চারা নষ্ট হয়ে যাওয়ায় সেটা সম্ভব না।

একই এলাকার কৃষক রফিকুল ইসলাম জানান, প্রতিদিন সকালে বীজতলার কুয়াশা ছাড়িয়ে স্প্রে করেও কোনো ফলাফল পাওয়া যাচ্ছে না। চারার বৃদ্ধি বন্ধ হয়ে গেছে এবং হলুদ রং ধারণ করেছে।

এদিকে বীজতলা কোল্ড ইনজুরি থেকে বাঁচাতে সন্ধ্যায় বীজতলা পানি দিয়ে পূর্ণ করে তা সকালে বের করে দেয়ার পরামর্শ দিচ্ছে কুড়িগ্রামের কৃষি অধিদফতর।

এছাড়া কিছু ওষুধ স্প্রে করতেও পরামর্শ দেয়া হয়েছে। এবার জেলায় ৫ হাজার ৯৪ হেক্টর জমিতে ইরি বোরো বীজতলা করা হয়েছে এবং আবাদের লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করা হয়েছে ১ লাখ ১১ হাজার হেক্টর।